Latest: coronavirus: ওডিশার বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে কোভিডের জন্য ৫০% বেড সংরক্ষণে নির্দেশ – odisha govt asks private hospitals to reserve 50% beds for covid patients

Latest: coronavirus: ওডিশার বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে কোভিডের জন্য ৫০% বেড সংরক্ষণে নির্দেশ – odisha govt asks private hospitals to reserve 50% beds for covid patients

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ওডিশায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায়, পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে তৈরি থাকার নির্দেশ দিল সরকার। রাজ্য সরকারের তরফে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) এক নির্দেশে বলা হয়েছে, প্রতিটি বেসরকারি হাসপাতালকে ৫০ শতাংশ বেড কোভিড রোগীদের জন্য বরাদ্দ করতে হবে। ওডিশার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক এই মর্মে নির্দেশ জারি করে, অবিলম্ব তা কার্যকর করার কথা জানিয়েছে।

নোটিফিকেশনে বলা হয়, ৩০ বা তার ঊর্ধ্বে বেড রয়েছে এমন বেসরকারি হাসপাতালগুলির ৫০ শতাংশ সাধারণ বেড কোভিড রোগীর জন্য সংরক্ষণ করা বাধ্যতামূলক। এ ছাড়া আইসিইউয়ের ৮০ শতাংশ বেড রেখে দিতে হবে করোনা পজিটিভ রোগীদের চিকিত্‍‌সার জন্য। ভুবনেশ্বর, কটক, সম্বলপুর, বেরহামপুর, রৌরকেল্লা পুরসভার অন্তর্গত বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে রাজ্য সরকারের এই নির্দেশ মনে চলতে হবে। সেইসঙ্গে এ-ও বলা হয়েছে, রাজ্য সরকারের বেঁধে দেওয়া রেট চার্টের অতিরিক্ত টাকা রোগীর পরিবারের কাছ থেকে নেওয়া যাবে না।

সোমবার পর্যন্ত ওডিশায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ৫৫ হাজার। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের হিসেব অনুযায়ী, সেপ্টেম্বরের শেষে এই সংখ্যাটা ২ লক্ষ ছাড়িয়ে যাবে। তাই পরিস্থিতি মোকাবিলায় এদিন রাজ্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক এই নির্দেশ জারি করে। যাতে চিকিত্‍‌সা নিয়ে করোনা রোগীদের বিভ্রাটে না পড়তে হয়।

আরও পড়ুন: দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়া করোনা পজিটিভ, গেলেন আইসোলেশনে

এদিন জেলা কালেক্টর ও কমিশনারদের উদ্দেশে আর একটি নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। রোগী নেই এমন কোভিড কেয়ার সেন্টার, কোভিড কেয়ার হোম ও অস্থায়ী মেডিক্যাল সেন্টারগুলি বন্ধ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: বাংলায় ৪ হাজার ছাড়াল করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা, তবে সুস্থতার হারও ৮৬.৫৫%

বিভিন্ন রাজ্য থেকে ফিরে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের আইসোলেশনে রাখার ব্যবস্থা করতে ওডিশার গ্রাম পঞ্চায়েতগুলিতে অস্থায়ী মেডিক্যাল সেন্টার খুলেছিল রাজ্য সরকার। এখন আর নতুন করে রাজ্যে পরিযায়ী শ্রমিক ফিরে আসার সম্ভাবনা নেই। যে কারণে ওই অস্থায়ী মেডিক্যাল সেন্টারগুলি অপ্রয়োজনীয় হয়ে পড়েছে। তাই এগুলি বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সরকার বাড়িতেই আইসোলেশনে থাকার অনুমতি দেওয়ায় কোভিড কেয়ার হোম ও কোভিড কেয়ার সেন্টারগুলিতেও রোগী সে ভাবে আসছেন না। অনেক ক্ষেত্রে আসার প্রয়োজনও পড়ছে না। তাই সেই কেন্দ্রগুলি চিহ্নিত করে, বন্ধ করতে বলা হয়েছে।

রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব পিকে মহাপাত্র সোমবার এই মর্মে চিঠি দিয়েছেন কালেক্টর ও মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের কমিশনারদের। রোগীহীন এই কেন্দ্রগুলিতে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীদের অন্যত্র যাতে কাজে লাগানো যায়, তার জন্যই এই নির্দেশ।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here