Latest: sushant singh rajput case: ১৩ জুন দুপুর থেকেই ফোনে যোগাযোগ রাখা বন্ধ করে দিয়েছিলেন সুশান্ত! – sushant singh rajput’s phone records reveals he went off-grid on june 13 post 2:22 pm, a day before his death

Latest: sushant singh rajput case: ১৩ জুন দুপুর থেকেই ফোনে যোগাযোগ রাখা বন্ধ করে দিয়েছিলেন সুশান্ত! – sushant singh rajput’s phone records reveals he went off-grid on june 13 post 2:22 pm, a day before his death

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput Case) মৃত্যু তদন্তে ফের চাঞ্চল্যকর মোড়। ১৪ জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয় অভিনেতার ঝুলন্ত দেহ। আর তারপরেই দেশজুড়ে দাবি ওঠে সিবিআই তদন্তের। অবশেষে সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) ছাড়পত্র পাওয়ার পর তদন্তভার নিজেদের হাতে তুলে নেয় সিবিআই (CBI)। বিভিন্ন দিক থেকে খতিয়ে দেখা শুরু হয় অভিনেতার মৃত্যুর পিছনে আসল কারণ। জেরা করা হয় তাঁর ঘনিষ্ঠদেরও। সম্প্রতি সিবিআই সূত্রে উঠে এসেছে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য।

জানা গিয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঠিক আগের দিন অর্থাত্‌ ১৩ জুন বিকেল থেকে নেটওয়ার্কের বাইরে চলে যায় তাঁর মোবাইল ফোন। তারপর থেকে কোনও ফোন অথবা মেসেজ ঢোকেনি তাঁর ফোনে। একই সঙ্গে সুশান্তের ময়নাতদন্তের রিপোর্টেও কোথাও উল্লেখ নেই তাঁর মৃত্যুর সময়ের।

Times Now-এর রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে ১৩ জুন দুপুর ২.২২-এর পর থেকে ফোনে কোনওভাবে যোগাযোগ রাখেননি সুশান্ত। উত্তর দেননি কোনও ফোন কল বা চ্যাট অথবা মেসেজের। জানা গিয়েছে দুপুরে শেষ ফোনটি তিনি করেছিলেন তাঁর ট্যালেন্ট ম্যানেজারকে।

উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন আগেই সুশান্ত সিং রাজপুতের এক পড়শি দাবি করেছিলেন অভিনেতার মৃত্যুর আগের দিন রাতে অনেক আগেই তাঁর ফ্ল্যাটের সব আলো নিভে যায়। সাধারণত এমনটা হত না। সুশান্তের বাড়ির রাঁধুনে নীরজ দাবি করেছিলেন, ১৪ তারিখ সকালে তিনি শুধু এক গ্লাস ফলের রস খেয়েছিলেন। কিন্তু সম্প্রতি জানা গিয়েছে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বলা হয়েছে তাঁর ইউরিনারি ব্লাডার খালি ছিল মৃত্যুর সময়ে।

আরও পড়ুন: অপেক্ষার ২০ সেপ্টেম্বর! সুশান্ত মৃত্যু আত্মহত্যা নাকি খুন? জানাবেন AIIMS বিশেষজ্ঞরা

এ বার কি জেরা সারা আলিকে? রিয়ার বয়ান ঘিরে জল্পনা

এরই মধ্যে জানা গিয়েছে ১৭ সেপ্টেম্বর সিবিআই-এর মেডিকাল বোর্ডের একটি বৈঠক আছে যেখানে AIIMS-এর চিকিত্‌সকরা আলোচনা করবেন অভিনেতার রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে। এইমসের তরফে জানানো হয়েছে যে ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাঁরা সুশান্তের মৃত্যুর যাবতীয় সন্দেহের অবসান ঘটাবেন। AIIMS এর ফরেন্সিক বিভাগীয় প্রধান সুধীর গুপ্তার নেতৃত্বে একটি টিম তৈরি করা হয়। শুক্রবারই হাতে আসবে সুশান্তের ভিসেরা রিপোর্ট। এরপরই সিবিআই এর সঙ্গে কথা বলে রবিবারের মধ্যে যাবতীয় রিপোর্ট তৈরি করে ফেলবেন বিশেষজ্ঞরা।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here