Latest: woman murdered: ১২ বছর আগে ‘খুন’ হওয়া মহিলাকে জীবিত উদ্ধার উত্তরপ্রদেশে! – in uttar pradesh a woman who was ‘murdered’ 12 years ago, found alive

Latest: woman murdered: ১২ বছর আগে ‘খুন’ হওয়া মহিলাকে জীবিত উদ্ধার উত্তরপ্রদেশে! – in uttar pradesh a woman who was ‘murdered’ 12 years ago, found alive

হাইলাইটস

  • ছয় ব্যক্তির বিরুদ্ধে তাঁর মেয়েকে অপহরণ করে খুন করার অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।
  • এমনকি স্থানীয় পুলিশ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ১২ বছর আগে নাকি খুন করা হয়েছিল তাঁকে। সেই অপরাধে জেলও ছয় জনের। কিন্তু এক যুগ পর সেই ‘খুন’ হওয়া মহিলারই খোঁজ পাওয়া গেল। তিনি দিব্বি বেঁচেবর্তে আছেন এবং বিয়ে করে রীতিমত সংসার করছেন।

অবাক করা এই ঘটনা ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের জালাউন জেলায়। ২০০৮-এ তখন ওই মহিলার বয়স ছিল ১৪ বছর। আচমকাই একদিন নিখোঁজ হয়ে যান তিনি। কোতওয়ালি পুলিশ স্টেশনে তাঁর নামে মিসিং ডায়রি দায়ের করা হয়। এর দিন কয়েক পরে কানপুর জেলার ঘাটমপুর এলাকা থেকে এক অজ্ঞাতপরিচয় কিশোরীর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এটি তাঁর মেয়েরই মৃতদেহ বলে শনাক্ত করেন নিখোঁজ মেয়েটির মা।

ছয় ব্যক্তির বিরুদ্ধে তাঁর মেয়েকে অপহরণ করে খুন করার অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। এমনকি স্থানীয় পুলিশ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে এই মামলা স্থানীয় পুলিশের থেকে সিবিসিআইডি-র কাছে স্থানান্তরিত হয়। অভিযুক্ত ছয় ব্যক্তিকে জেলে পাঠানো হয়। ট্রায়াল চলাকালীন মৃত্যু হয় একজনের। বাকিদের জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়।

খুনে অভিযুক্তকে পুলিশের সামনেই পিটিয়ে হত্যা যোগীরাজ্যে

এই ঘটনার এত বছর পর হঠাত্‍ই এই মামলা উল্লেখযোগ্য মোড় নেয়। উত্তরপ্রদেশের আলিগড় খোঁজ পাওয়া যায় মেয়েটির। ১২ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া ১৪-র কিশোরীর এখন ২৬ বছর বয়স। আলিগড়েই বিয়ে করে সংসার করছেন তিনি। এক স্থানীয় রাজনীতিবিদের অভিযোগের ভিত্তিতে মেয়েটিকে খুঁজে বের করে জালাউনের পুলিশ।

ওই মহিলাকে কালপি নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এতদিন তিনি কোথায় ছিলেন এবং কেন বাড়ি ফিরে আসেননি, সেই বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আদালতে খুব শিগগিই হাজিরা দিতে হবে তাঁকে। সেখানে তাঁর বয়ান রেকর্ড করা হবে। অভিযুক্ত ছয় জনের ওপর থেকে খুনের অভিযোগ তুলে নেওয়া হবে এবং এই মামলার প্রেক্ষিতে তাঁদের ক্লিনচিট দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেম জালাউনের পুলিশ সুপার যশভীর সিং।

এদিকে উত্তরপ্রদেশের কানপুর দেহাত জেলার গাজনের থানা এলাকার খানপান্না গ্রামে সর্বসমক্ষে কুঠারের কোপ মেরে নিজের ১৮ বছরের মেয়েকে খুন করল বাবা। বুধবার এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বাড়ি থেকে পালিয়ে বয়ফ্রেন্ডের বাড়িতে গিয়ে ওঠে ওই তরুণী। গ্রামেই একটি দোকান চালান ওই ছেলেটি। তিনি ও তাঁর বাবা মেয়েটির বাবাকে খবর দেন। এতেই তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে হাতে একটা কুঠার নিয়ে বেরিয়ে পড়ে তরুণীর বাবা। মেয়ে বাড়ি ফিরতে না চাইলে সবার সামনে কুঠারের কোপ মেরে মেয়েকে শেষ করে দেয় সে।

খবরটি ইংরেজিতে পড়ুন।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here