Latest: হরিদ্বারে এক সপ্তাহে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ২৫০ শতাংশ! মহাকুম্ভের আগে প্রবল সতর্কতা জারি

Latest: হরিদ্বারে এক সপ্তাহে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ২৫০ শতাংশ! মহাকুম্ভের আগে প্রবল সতর্কতা জারি

দেশে করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপ হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে আগামী ১ এপ্রিল থেকে উত্তরাখণ্ডে শুরু হচ্ছে এবছরের মহাকুম্ভ (Mahakumbh) মেলা। অথচ হরিদ্বারের (Haridwar) কোভিড (COVID-19) পরিস্থিতি রীতিমতো ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। দেখা যাচ্ছে, মার্চের প্রথম সপ্তাহের তুলনায় গত এক সপ্তাহে ২৫০ শতাংশ বেড়েছে সংক্রমণ! স্বাভাবিক ভাবেই এই পরিস্থিতিতে অত্যন্ত সতর্ক প্রশাসন।

মহাকুম্ভ উপলক্ষে এপ্রিলে অন্তত ৩ থেকে ৫ কোটি তীর্থযাত্রী আসবেন দেবভূমি হরিদ্বারে। গত ১১ মার্চের প্রথম শাহিস্নানে অংশ নিয়েছিলেন ৩.৩ কোটি মানুষ। এরপর ১ এপ্রিল পরবর্তী শাহিস্নানের দিন। ওইদিনই শুরু হচ্ছে মহাকুম্ভ মেলা। এদিকে পরিস্থিতি রীতিমতো ভীতিপ্রদ। মার্চের প্রথম সপ্তাহে যেখানে মাত্র ৭৮ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন, সেখানে গত সাত দিনে সেখানে করোনার প্রকোপে পড়েছেন ২৭৮ জন। ১ মার্চ মাত্র ১৬ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন। অথচ শুক্রবার আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮!

আরও পড়ুন:মুম্বাইয়ে হাসপাতালে আগুন, নিহত বেড়ে ৬

আগামী ১ এপ্রিলই ১ কোটি তীর্থযাত্রী শাহিস্নানে যোগ দিতে আসবেন এখানে। আপাতত সেদিকে লক্ষ রেখে সতর্ক প্রশাসন। চিফ মেডিক্যাল অফিসার ডা. এসকে ঝা জানিয়েছেন, করোনা পরীক্ষার পরিমাণ বাড়াতে তাঁরা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। দিনদুয়েক আগেই উত্তরাখণ্ডের হাই কোর্ট জানিয়ে দিয়েছে, করোনার নেগেটিভ সার্টিফিকেট ছাড়া কাউকেই হরিদ্বারে প্রবেশাধিকার দেওয়া হবে না। এবং অ্যান্টিজেন টেস্ট নয়, আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষা করিয়ে সেই রিপোর্ট জমা দিতে হবে।

শনিবার ডা. এসকে ঝা জানিয়েছেন, ”যাঁদের সঙ্গে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট থাকবে না, তাঁদের ফিরিয়ে দেওয়া হবে। আর পরীক্ষা করে যাঁদের পজিটিভ পাওয়া যাবে তাঁদের আইসোলেশনে রাখা হবে। একসঙ্গে ১০ হাজার লোককে আইসোলেশনে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।” সার্বিকভাবে শনিবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৬২ হাজার ২৫৮ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। যা আগের দিনের থেকে কয়েক হাজার বেশি।



Source

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here