Latest: কোটি টাকার সাপের বিষ পাচার করতে গিয়ে মহিলা-সহ গ্রেপ্তার ৬

Latest: কোটি টাকার সাপের বিষ পাচার করতে গিয়ে মহিলা-সহ গ্রেপ্তার ৬

সাপের বিষেই কোটি টাকা আয়! আর সে পথে হেঁটে অর্থপ্রাপ্তির আশায় নিজেদের বিপদ ডেকে আনলেন ভুবনেশ্বরের ৬ জন। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে ১ লিটার সাপের বিষ (Snake venom) এবং পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত ৬ জনকে গ্রেফতার করল ভুবনেশ্বরের (Bhubaneswar) বনদপ্তর। ধৃতদের মধ্যে এক মহিলাও রয়েছেন। শনিবার তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ওড়িশার (Odisha) ভুবনেশ্বরের জেলা বন আধিকারিক (ডিএফও) অশোক মিশ্র জানিয়েছেন, তাঁরা খবর পান বালাসোরের একটি জায়গায় সাপের বিষ পাচারের চেষ্টা করছেন কয়েক জন। দলবল নিয়ে গোপন অভিযানে নামেন বনদপ্তরের আধিকারিকরা। সেখানে পৌঁছে প্রথম ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেন তাঁরা। ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় এই বিপুল পরিমাণ সাপের বিষ। অশোক মিশ্র আরও জানিয়েছেন, ১ লিটার সাপের বিষের পাশাপাশি উদ্ধার হয়েছে বিষের ছোট ছোট পাঁচটি ভায়ালও। এই ভায়লগুলিতে পাঁচ মিলিলিটার করে বিষ ধরে। উদ্ধার হওয়া বিষগুলির আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য প্রায় ১ কোটি টাকা বলে জানিয়েছেন তিনি। এই বিষ বারগড় থেকে আনা হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। পাচারের আগেই সেগুলি বনদপ্তরের হাতে বাজেয়াপ্ত হল।

আরও পড়ুন: দেশে ৩ মাসে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড

বনদপ্তর খবর পেয়ে প্রথমে বালাসোর থেকে ১ মহিলা সহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে। আন্তর্জাতিক বাজারে এই বিষের দাম প্রায় ১ কোটি টাকার মতো হলেও ধৃতরা এই বিষ ১০ লক্ষ টাকায় কিনেছিলেন বলে জেরায় জানা গিয়েছে। তাদের জেরা করে পরে আরও ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। ডিএফও অশোক মিশ্র আরও জানিয়েছেন, এই ১ লিটার বিষ সংগ্রহ করতে গেলে প্রায় ২০০টি কোবরা লাগে।

ধৃতদের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন-সহ ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫টি ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। রবিবার তাঁদের আদালতে তোলা হচ্ছে। সেই সঙ্গে ধৃতদের জেরা করে জানার চেষ্টা হচ্ছে এই চক্রের সঙ্গে আর কারা কারা জড়িত রয়েছে। এবং বিষগুলি কোথায় পাচারের চেষ্টা হচ্ছিল। ধৃতদের কাছে এমন আর কোনও নিষিদ্ধ বস্তু রয়েছে, কিনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।



Source

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here