Latest: হাতে টাকা নেই? এই সঞ্চয়গুলি কম লোকসানে যোগাবে টাকা – Kolkata24x7

Latest: হাতে টাকা নেই? এই সঞ্চয়গুলি কম লোকসানে যোগাবে টাকা – Kolkata24x7

নয়াদিল্লি : টানা লকডাউন। তারপর লকডাউন উঠলেও জারি আনলক পর্যায়। ফলে রোজগারে টান বহু ক্ষেত্রের মানুষের। বহু মানুষ চাকরি খুইয়েছেন, বহু মানুষ বেতন পাননি। ফলে হাতে টাকা নেই অনেকেরই। এই পরিস্থিতি ঋণ নিতে অনেকেই চান না।

কিন্তু কিছু উপায় রয়েছে, যার থেকে খুব কম লোকসানে ধার না করেও হাতে টাকা পেতে পারেন। এজন্য সাহায্য নিতে হবে আপনারই সঞ্চয়ের। তবে সব ক্ষেত্র নয়, কিছু সঞ্চয় পদ্ধতি খুব কম লোকসানে টাকা তুলে দেবে আপনার হাতে।

১. লিকুইড ফান্ড : যদি লিকুইড ফান্ডে টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন, তবে তা ফেরত পাওয়া বেশ সহজসাধ্য কাজ। লাভেরও বটে। বিনিয়োগের তিন বছরের মধ্যে যদি লিকুইড ফান্ড বিক্রি করেন তবে তা বেশ লাভজনক বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। যদি তিন বছর পরে তা বিক্রি করা হয়, তবে মূলধনের ওপরে ২০ শতাংশ পাওয়া যায়।

২. এফডি : যদি ব্যাংকে ফিক্সড ডিপোজিট থাকে, তবে তা থেকে টাকা তুলে নেওয়া যায়। প্রিক্লোজার চার্জ ১ শতাংশ পড়লেও, তা অতি সামান্য হয়। ফলে এই লোকসান খুব একটা সমস্যায় ফেলে না। এতে সুদের হার, যত সময়ের জন্য টাকা রাখা হয়েছে, তা পাওয়া যায়। এছাড়াও এই এফডির প্রেক্ষিতে ঋণ নেওয়া যায় ব্যাংক থেকে।

৩. কম্পালসারি ডিপোজিট : লিকুইড ফান্ড ও ব্যাংক এফডির পরে যে সঞ্চয় তহবিল আপনাকে টাকার যোগান দিতে পারে, তা হল কম্পালসারি ডিপোজিট। তবে বাজারের সঙ্গে প্রত্যক্ষ যোগ থাকায়, এই তহবিল থেকে সুদের রিটার্ণ ভালো নয়। ব্যাংক এফডির তুলনায় এই সিডিতে পেনাল্টির পরিমাণ বেশি

৪.ইক্যুইটি ফান্ড : যদি উপরিউক্ত তহবিল থেকে টাকা না মেলে, তখনই ইক্যুইটি নিয়ে ভাবা উচিত। কারণ এতে রিটার্ণের ক্ষেত্রে ঝুঁকি অনেক বেশি। ৫. সোনা : এই ক্ষেত্রটি আপনার তালিকা সর্বনিম্নে থাকা উচিত। কারণ সোনা বিক্রি করা লাভজনক নয়। কারণ একানে দোকানের মেকিং চার্জ বাদ দিতে হয়। হলমার্ক সোনার ক্ষেত্রেও একই সমস্যায় পড়েন মানুষ।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here