Latest: সাত প্রজন্মের টাকা গচ্ছিত রাখা তারকাদের কিসের ভয়?

Latest: সাত প্রজন্মের টাকা গচ্ছিত রাখা তারকাদের কিসের ভয়?

স্রোতে গা না ভাসিয়ে বরাবরই অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন নাসিরুদ্দিন শাহ। তোয়াক্কা করেননি সমালোচনার। সাম্প্রতিক কৃষক আন্দোলন নিয়ে বলিউড তারকাদের বড় একটি স্রোত সরকারের সঙ্গে তাল মেলাচ্ছে। সেখানে স্বভাবসুলভভাবে নায্য দাবির পক্ষ নিলেন।

কয়েক দিন আগে এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া দেন জীবন্ত কিংবদন্তি নাসিরুদ্দিন শাহ। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়েছে। যেখানে এক সাংবাদিকের সঙ্গে কৃষক আন্দোলন নিয়ে কথা বলতে দেখা গিয়েছে তাকে।

ঘটনার সূত্রপাত পপস্টার রিয়ান্নার একটি টুইট দিয়ে। দিল্লিতে চলতে থাকা কৃষকদের অবস্থান বিক্ষোভকে সমর্থন জানিয়ে টুইট করেন তিনি। তার পরেই একে একে পরিবেশ আন্দোলন কর্মী গ্রেটা থানবার্গ, সাবেক পর্ন তারকা মিয়া খালিফাসহ অনেক আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব কৃষকদের পাশে দাঁড়ান।

বিদেশি তারকাদের পাল্টা হিসেবে ঐক্যবদ্ধ ভারতের ডাক দেন শচীন টেন্ডুলকার, বিরাট কোহলি, রবি শাস্ত্রী, অক্ষয় কুমার, লতা মঙ্গেশকর, সুনীল শেঠি, করণ জোহর, কঙ্গনা রানৌতসহ অনেকে।

আরও পড়ুন : করোনায় মানুষের অসচেতনতা দেখে ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মালাইকা

তখনই কৃষকদের পক্ষে সওয়াল করলেন নাসিরুদ্দিন। স্পষ্ট জানান, অন্যায় দেখে চুপ করে থাকাটাও বড় অন্যায়। বড় বড় তারকা চুপ করে রয়েছেন, কারণ তারা মনে করছেন মুখ খুললেই তাদের ক্ষতি হবে। যখন একজন তারকা সাত প্রজন্মের জন্য টাকা গচ্ছিত করে রেখেছেন, তাদের কিছু হারানোর ভয় কিসের?

নাসিরুদ্দিন শাহের এই পোস্ট শেয়ার করেছেন পাঞ্জাবের জনপ্রিয় গায়ক জি সিধু। শাহকে ‘আসলি মর্দ’ বলেও নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে উল্লেখ করেন তিনি।

মূলত ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে বিদেশি সেলিব্রিটিদের দেশটির আভ্যন্তরীণ ব্যাপারে মাথা না ঘামাতে বলা হয়। সেই বিবৃতি ও হ্যাশট্যাগ পরে শেয়ার করেন নানান অঙ্গনের তারকারা।

এ বিষয়ে অভিনেত্রী কঙ্কনা সেন শর্মা মনে করেন, ভয়ের কারণেই ‘ঐক্যবদ্ধ ভারত’-এর হয়ে এক সুরে কথা বলছেন তারকারা।

কয়েক দিন আগে অমিত বর্মা নামক এক সাংবাদিক টুইটারে এই প্রসঙ্গে লেখেন। জানতে চান, “মাঝে মধ্যেই আমার মনে হয়, বলিউড অথবা ক্রিকেট তারকারা যখন, যা যা করেন, তা কি গাজরের জন্য নাকি, অন্য হাতে থাকা লাঠিটাই তাদের এ সব করতে বাধ্য করে!”

ব্যাপারটা আর একটু স্পষ্ট করে অমিত জানতে চান, “আমাদের দেশের তারকারা যে পরিমাণ ধনী, তাতে ঘুষ দেওয়া যাবে বলে মনে হয় না, তবে কি তারা ভয় পেয়েই এত হট্টগোল? কিন্তু কিসের ভয়? আশা করি তারকা জগতের মধ্যে থেকে কেউ আমাকে সঠিক জবাব দেবেন।”

এই প্রশ্নের জবাবে কঙ্কনা লেখেন, “আমার মতে বেশির ভাগের ক্ষেত্রেই ভয়ই কাজ করে।”

এ ছাড়া রিচা চাড্ডা, তাপসী পান্নু, দিলজিৎ দোসঞ্জসহ অনেক তারকা কৃষকদের পক্ষ নিয়ে সরাসরি আসরে নেমেছেন। তবে সালমান খানসহ একাধিক তারকারা কৃষকদের জন্য সহানুভূতি প্রকাশ করেন।

Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here