Latest: বাংলাদেশের অশ্লীল সিনেমার নায়িকারা কে কোথায়?

Latest: বাংলাদেশের অশ্লীল সিনেমার নায়িকারা কে কোথায়?

জন্মলগ্ন থেকেই বাংলাদেশে ভালো ভালো চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছে। যেগুলো দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতো বিশ্বের কাছে। চলচ্চিত্রের স্বর্ণ যুগ বলা হয় সত্তর ও আশির দশককে। নব্বই দশক অবধি একটা সুন্দর ধারা অব্যাহত ছিল চলচ্চিত্রে। কিন্তু নব্বই দশকের শেষ দিকে এসে গর্ব করার মতো এই অঙ্গনটিতে অশ্লীলতার কালো ছায়া নেমে আসে। বেশ কয়েক বছর চলেছে অশ্লীল চলচ্চিত্রের জোয়ার। আর সেই সময় অশ্লীল ছবিতে অভিনয় করে বিতর্কিত-সমালোচিত হন নায়িকা মুনমুন, ময়ূরী, পলি, ঝুমকা, নাসরিন সহ অনেকে। পরবর্তীতে চলচ্চিত্রে অশ্লীলতা বিদায় নিলে ধীরে ধীরে কাজ কমে যায় এসব নায়িকার।

অনেক বছর পার হয়েছে। কিন্তু অশ্লীলতার দায়ে অভিযুক্ত সেসব নায়িকারা এখন কে কোথায় আছেন? অনুসন্ধান করে জানা গেছে, অনেক অশ্লীল ও কাটপিস ছবির নায়িকা ময়ূরী এখন চলচ্চিত্রে নেই। ১৩ বছর আগে সর্বশেষ চলচ্চিত্রে কাজ করেন তিনি। এরপর সংসার জীবনে মনোযোগী হয়েছেন। যদিও দুটি সংসার তার টেকেনি। ২০১৭ সালের মাঝামাঝি সময়ে তৃতীয় বিয়ে করেছেন ময়ূরী। পেশায় মাদ্রাসার শিক্ষক নতুন স্বামী মোহাম্মদ জুয়েল আহমেদকে নিয়েই এখন সংসার করছেন তিনি। চলচ্চিত্রে না থাকলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় ময়ূরী বেশ সক্রিয়। তবে চলচ্চিত্রের মানুষদের সঙ্গে তার যোগাযোগ হয়। ২০০৩ সালে বিয়ে করেই সিনেমা থেকে সরে দাঁড়ান আরেক বিতর্কিত নায়িকা মুনমুন। এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করে যুক্তরাজ্যে চলে যান তিনি। ২০০৬ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়। দেশে ফিরে স্টেজ শো ও যাত্রা শুরু করেন। যাত্রায় কাজ করতে গিয়ে পরিচয় হয় মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে। ২০০৯ সালে তিনি বিয়ে করেন মোশাররফকে। বিয়ের দুই বছরের মাথায় তাদের দূরত্ব তৈরি হয়। গত বছরের মাঝামাঝিতে তাদের বিচ্ছেদ হয়। এ নায়িকা জানান, দুই সন্তান নিয়ে ভালো আছেন। টঙ্গীর কামারপাড়া এলাকায় নিজের বাড়িতে থাকেন তিনি। ভাবছেন নতুন করে সংসার করা নিয়ে। গত সেপ্টেম্বরে তিনি ‘আগুন আর কতটুকু পোড়ে’ ছবিতে অভিনয় করেন। ২০০৩ সালে ‘ফায়ার’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে বড়পর্দায় যাত্রা পলির। প্রথম ছবিতেই অশ্লীলতার দায়ে অভিযুক্ত হন তিনি। পরের ছবিগুলোতেও সেই ধারাবাহিকতা ছিল।বর্তমানে ঢাকার গুলশানে স্বামী-সন্তান নিয়ে বসবাস করছেন। এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে তার। পোল্ট্রি ফিড ও বুটিক ব্যবসা নিয়েই এখন পলির ব্যস্ততা। ‘লাভ’ ছবির মধ্য দিয়ে ১৯৯২ সালে চলচ্চিত্রে যাত্রা নাসরিনের। অশ্লীল দৃশ্যে অভিনয় করে তিনিও হয়েছেন সমালোচিত। এ পর্যন্ত পাঁচ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে স্বামীর সঙ্গে বর্তমানে বনশ্রীতে থাকছেন নাসরিন।

২৫০টি ছবিতে অভিনয় করেন ঝুমকা। অনেক ছবিতে রগরগে দৃশ্যে অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১৩ সালে তিনি আমেরিকা চলে যান। বর্তমানে সেখানেই স্বামী দেলোয়ার সাঈদের সঙ্গে থাকেন। তাদের রয়েছে একটি পুত্র সন্তান। ঝুমকা সেখানে পার্টটাইম একটি সুপারশপে চাকরি করেন।

সূত্র: মানবজমিন।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here