Latest: আমিরকে স্টুডিও থেকে বের করে দেন গায়িকা!

Latest: আমিরকে স্টুডিও থেকে বের করে দেন গায়িকা!

আমির খানের আরেক নাম মিস্টার পারফেকশনিস্ট। অভিনয় থেকে আচরণ সবই এত মেপে বুঝে করেন তিনি যে তাতে সহজে খুঁত বের করা যায় না। সে কারণেই তিনি পারফেকশনিস্ট।

কিন্তু জানেন কি একবার এই পারফেকশনিস্ট আমিরকে স্টুডিও থেকে বের করে দিয়েছিলেন এক নামজাদা গায়িকা!

পর্দায় মুখ্য চরিত্র হিসেবে আমিরের আত্মপ্রকাশ ‘ক্যায়ামত সে ক্যায়ামত তাক’ ছবি দিয়ে। জুহি চাওলার বিপরীতে আমিরের অভিনয় দর্শকদের মন ছুঁয়ে গিয়েছিল।

এই ছবির সঙ্গে আমিরের গভীর সম্পর্ক ছিল। ছবির পরিচালক নাসির খানের ভাতিজা ছিলেন আমির।

আরও পড়ুন :রাস্তায় নিজের প্রচার করে বেড়াচ্ছেন আমির খান, ভিডিও ভাইরাল

তার ওপর তিনি শুধু নায়কের ভূমিকায় অভিনয়ই করেননি। তিনি পরিচালকের সহযোগী হিসেবেও কাজ করছিলেন।

জুহির অডিশন নেওয়া থেকে শুরু করে ছবির বেশির ভাগ অভিনেতাকে বেছে নেওয়া, ছবির প্রতিটি শ্যুটের জন্য জায়গা ঠিক করা— সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজেই তার ভূমিকা ছিল।

কিন্তু এই ছবিরই শ্যুটিংয়ের সময় এমন একটি ঘটনা ঘটেছিল যে কারণে আমিরকে নাকি স্টুডিও থেকে বের করে দিয়েছিলেন এক গায়িকা!

ছবির একটি গানের জন্য স্টুডিওতে এসেছিলেন অলকা ইয়াগনিক। গানটির রেকর্ডিং শুরু করেন তিনি। সে সময় স্টুডিওর ভিতরে আমিরও ছিলেন। আমির নাকি বারবার তার দিকে তাকাচ্ছিলেন।

বিষয়টি একেবারেই পছন্দ হয়নি অলকার। আমিরের এই বারবার তাকানো তাকে অস্বস্তিতে ফেলছিল। ফলে স্টুডিও থেকেই আমিরকে বের করে দেন তিনি।

অলকা তখনও আমিরের পরিচয় জানতেন না। তিনি যে ছবির নায়ক এবং পরিচালকের আত্মীয় তাও জানতেন না।

কোনও প্রতিবাদ না করে আমিরও চুপচাপ স্টুডিও থেকে বেরিয়ে যান। পরে পরিচালক নাসির স্টুডিওতে আসেন গানের রেকর্ডিং দেখার জন্য।

বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা আমিরকে নিয়েই তিনি ভিতরে ঢোকেন এবং অলকার সঙ্গে কথা বলার পর আমিরের প্রকৃত পরিচয় দেন।

আরও বেশি অস্বস্তিতে পড়ে যান গায়িকা। পরে তার আচরণের জন্য আমিরের কাছে দুঃখপ্রকাশও করেন।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here