Latest: ব্ল্যাক কফির ১০ টি চমৎকার স্বাস্থ্যগুণ!

Latest: ব্ল্যাক কফির ১০ টি চমৎকার স্বাস্থ্যগুণ!

ব্ল্যাক কফির ১০ টি চমৎকার স্বাস্থ্যগুণ! - West Bengal News 24

ব্ল্যাক কফির স্বাদ তেতো হওয়া অনেকেই এটি পছন্দ করে না। আবার অনেকেরই একটা ভুল ধারণা এটি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। বিশেষজ্ঞদের মতে, দিনে অন্তত দুবার ব্ল্যাক কফি খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী। সকালে ব্রেকফাস্টের পরে এবং সন্ধ্যায় এক কাপ কফি খাওয়া যেতে পারে। এক কাপ কফিতে ৬০ শতাংশ পুষ্টি, ২০ শতাংশ ভিটামিন এবং ১০ শতাংশ খনিজ ও ১০ শতাংশ ক্যালরি আছে।

যা হৃদযন্ত্রসহ দেহের অন্যান্য অংশের উপকার করে থাকে। জেনে নিন ব্ল্যাক কফির চমৎকার কিছু স্বাস্থ্যগুণ-

১. স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি
ব্ল্যাক কফি মস্তিষ্ককে সচল রাখতে সাহায্য করে। যার ফলে মনে রাখার ক্ষমতা অনেকখানি বেড়ে যায়। এছাড়া নার্ভকেও সচল রাখে।

২. ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাস করে
কফির উপাদানসমূহ ব্লাড সুগার কমিয়ে দেয় এবং মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে থাকে। যা ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাস করে। নিয়মিত কফি পানে ৭% ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকি হ্রাস করে থাকে।

আরও পড়ুন : হাজারো রোগমুক্তির উপায় লুকিয়ে রয়েছে এই ফুলে! জানলে অবাক হবেন!

৩. পেট পরিষ্কার করতে
কফি খেলে ঘন ঘন প্রসাব হয়। চিনি ছাড়া কফি খেলে শরীরের ক্ষতিকর বিষাক্ত পদার্থ, ব্যাকটেরিয়া প্রসাবের সাথে শরীর থেকে বের হয়ে যায়। যা পেট পরিষ্কার করে থাকে।

৪. ওজন হ্রাস করতে
ব্ল্যাক কফি ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে থাকে। এটি মেটাবলিজম ৫০% বাড়িয়ে দেয় এবং এর সাথে পেটে জমে থাকা চর্বি গলাতে সাহায্য করে।

৫. ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করে
এক সমীক্ষায় দেখা গেছে ব্ল্যাক কফি ২০% পুরুষের ক্যান্সার এবং ২৫% মেয়েদের ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি হ্রাস করে থাকে। যারা প্রতিদিন চার কাপ কফি পান করে তাদের ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি অনেকাংশে কমে যায়।

৬. হার্ট সুস্থ রাখে
ব্ল্যাক কফি দেহের ইনফ্লামেশন কমিয়ে হৃদরোগ হওয়ার সম্ভাবনা হ্রাস করে থাকে। চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি হার্ট সুস্থ রাখে।

আরও পড়ুন : ঠাণ্ডায় শিশুর নাক বন্ধ হলে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখবেন

৭. মন সতেজ রাখে
এক কাপ ব্ল্যাক কফি সাথে সাথে আপনার মুড ভাল করে দেয়। ক্যাফিন নার্ভ সিস্টেমকে প্রভাবিত করে আপনার মনকে প্রফুল্ল রাখতে সহায়তা করে।

৮. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ
ব্ল্যাক কফিতে আছে নানা রকমের আন্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীর সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। এতে আরো রয়েছে পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ভিটামিন বি টু, বি থ্রি এবং বি ফাইভ এবং ম্যাঙ্গানিজ।

৯. যকৃত সুস্থ রাখতে
নিয়মিত পরিমিত পরিমাণে ব্ল্যাক কফি খাওয়া হলে যকৃতের ক্যান্সার, ফ্যাটি লিভার, হেপাটাইটিস, অ্যাল্কোহলের কারণে হওয়া ‘লিভার সিরোসিস’ হওয়ার ঝুঁকি কমে। ব্ল্যাক কফি যকৃতের ক্ষতিকারক এনজাইমের মাত্রা কমাতেও সহায়তা করে।

১০. বয়স ধরে রাখে
অনেকদিন পর্যন্ত বয়স ধরে রাখতে সাহায্য করে চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি। এছাড়া পার্কিনসনের মতো রোগকেও আটকাতে সক্ষম ব্ল্যাক কফি।

 Read on the original site 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here