Latest: টিজ করতে গিয়ে প্রেম; বাস্কেটবল তারকার সঙ্গে যেভাবে ইশান্তের বিয়ে

Latest: টিজ করতে গিয়ে প্রেম; বাস্কেটবল তারকার সঙ্গে যেভাবে ইশান্তের বিয়ে

২০১১ সালে এক বাস্কেটবল টুর্নামেন্টে আমন্ত্রিত ছিলেন ইশান্ত শর্মা। সেখানে সুন্দরীদের দিকে তাকিয়ে ভারতীয় পেসার তার এক বন্ধুকে বলেছিলেন, ‘এখানে স্কোরাররা তো বেশ সুন্দরী।’ সাথে সাথেই অবশ্য ইশান্তের ভুল শুধরে দেন তার বন্ধু। যে তরুণীকে ফ্লার্ট করে তিনি এই কথাগুলো বলেছেন, তিনি স্কোরার নন। বরং তিনি জাতীয় দলের নামী বাস্কেটবল খেলোয়াড় প্রতিমা সিং। হবু স্ত্রীর সঙ্গে এ ভাবেই আলাপ হয়েছিলে ইশান্তের।

প্রতিমার বড়বোন প্রিয়াঙ্কার আমন্ত্রণে সেই ম্যাচ দেখতে গিয়েছিলেন ইশান্ত। প্রতিমার বাকি ৪ বোনই বাস্কেটবল খেলোয়াড়। তার দিদি প্রিয়াঙ্কা বর্তমানে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব স্পোর্টসে বাস্কেটবল কোচ। বাকি বোনদের মধ্যে দিব্যা অনূর্ধ্ব ১৬ পুরুষ বাস্কেটবল দলের প্রশিক্ষক। প্রশান্তি মহিলাদের জাতীয় দলের অধিনায়ক। আকাঙ্ক্ষা এবং প্রতিমাও খেলছেন জাতীয় দলে। বাস্কেটবলের দুনিয়ায় তারা ‘সিং সিস্টার্স’ নামে পরিচিত।

আরও পড়ুন : ‘এমন খবর আমি কখনও ব্রেক করতে চাইনি’

বাস্কেটবলের সেই প্রতিযোগিতায় প্রথম দর্শনেই প্রতিমাকে ভাল লেগেছিল ইশান্তের। কিন্তু প্রতিমা তাকে বিশেষ পাত্তা দেননি। ফেসবুকে ইশান্তের ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট গ্রহণ করতেই সময় নিয়েছিলেন ২ বছর। এর পর ধীরে ধীরে দুজনের বন্ধুত্ব এবং সেখান থেকে প্রেমপর্ব শুরু হয়। ২০১৬ সালে প্রতিমাকে প্রোপোজ করেন ইশান্ত। ৩ বছরের প্রেমপর্ব শেষে ২০১৬ সালের জুন মাসে তাদের এনগেজমেন্ট হয়। বিয়ে হয় আরও ৬ মাস পর।

ইশান্ত এবং প্রতিমা জানিয়েছেন, খেলাধূলার প্রতি ভালবাসাই তাদের সম্পর্ককে দ্রুত গাঢ় করেছে। প্রতিমা শর্ত দিয়েছিলেন, বিয়ের পরও জাতীয় দলের হয়ে খেলা চালিয়ে যাবেন। সে কথা তিনি রেখেছেন। ইশান্ত কখনই তার স্ত্রীর ক্যরিয়ারে বাধা হয়ে দাঁড়াননি। নিজের ম্যাচের জন্য প্রতিমা সব সময় ইশান্তের ম্যাচ দেখতে উপস্থিত থাকতে পারেন না। কিন্তু সেটা নিয়ে তাদের দাম্পত্যে সমস্যা হয়নি। নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়ায় সব কিছু ঠিক করে নেন দুই খেলার জাতীয় দলের দুই সদস্য।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here