Latest: Tinder: ‘টিন্ডার’ টানছে কলকাতাকে, লকডাউনে সবচেয়ে বেশি সার্চের কৃতিত্ব এই শহরের! – quarantinder:from most used emojis in bios to most right swiped neighborhoods in kolkata

Latest: Tinder: ‘টিন্ডার’ টানছে কলকাতাকে, লকডাউনে সবচেয়ে বেশি সার্চের কৃতিত্ব এই শহরের! – quarantinder:from most used emojis in bios to most right swiped neighborhoods in kolkata

হাইলাইটস

  • সম্প্রতি টিন্ডারে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে।
  • যেখানে দেখা গিয়েছে কলকাতা থেকে সবচেয়ে বেশি সংখ্যায় লোকজন এই অ্যাপে অ্যাকাউন্ট খুলেছে।
  • যদিও প্রথম স্থানে রয়েছে দিল্লি।
  • এরপর রয়েছে বেঙ্গালুরু , পুনে, মুম্বই। কলকাতার মধ্যে এগিয়ে রয়েছে বালিগঞ্জ, নিউ আলিপুর, টালিগঞ্জ, পার্কস্ট্রিট

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকমাস আগেই নতুন চাকরি নিয়ে পুনেতে শিফট করেছে শ্রেয়া। নতুন শহরে সবেমাত্র দুমাস কাটিয়েছে,ধাতস্ত হয়েছে কি না হয়েছে এদিকে শুরু হয়ে গেল লকডাউন। ওয়ার্ক ফ্রম হোম আর নিজের কাজ সামলাতে গিয়ে জেরবার। তার উপর করোনার সংক্রমণের জেরে সবসময় হাত ধোওয়া, মাস্ক পরা এসব নিয়ে মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে। এদিকে করোনার মুখেই অনসাইট থেকে বাড়ি ফিরেছে দিব্যজ্যোতি। ভেবেছিল এতদিন পর অফিসে গিয়ে আবার হইহুল্লোড় করবে, চা খাবে, বন্ধুদের সঙ্গে উইকএন্ডে দেখা করবে সে গুড়ে বালি। ফলে ঘরে বসে বসে ক্রমশই মেজাজ খারাপ হতে শুরু হল দিব্যর।

অফিসের পর কতই বা আর সোশ্যাল মিডিয়া ঘাঁটা যায়। এদিকে ছেলে এতদিন বাদে বাড়ি ফিরেছে বলে মা মোটেই রান্নাঘরের দিকে ঢুকতে দিচ্ছে না। রেগে গিয়ে শেষপর্যন্ত টিন্ডারে একটা অ্যাকাউন্ট খুলে ফেলল দিব্যজ্যোতি। ওদিকে অফিস-রান্না সামলে সবসময় মেজাজ সপ্তমে থাকছে শ্রেয়ার। শ্রেয়াও যোগ দিল টিন্ডারে। শুধুমাত্র দিব্য বা শ্রেয়াই নয়, কোভিডে জেন-z এর অবস্থা খানিকটা একইরকম। মন ভালো রাখতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সবাই ঝুঁকেছেন এই সব ডেটিং সাইটের দিকে।

টিন্ডারের প্রকাশিত ফ্যাক্ট শিট

আর তাই মার্চ থেকে হঠাৎ করেই বিভিন্ন ডেয়িং সাইটে অ্যাকটিভ সব প্রোফাইলগুলি। জনপ্রিয় ডেটিং অ্যাপ টিন্ডার। সম্প্রতি টিন্ডারে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। যেখানে দেখা গিয়েছে কলকাতা থেকে সবচেয়ে বেশি সংখ্যায় লোকজন এই অ্যাপে অ্যাকাউন্ট খুলেছে। যদিও প্রথম স্থানে রয়েছে দিল্লি। এরপর রয়েছে বেঙ্গালুরু , পুনে, মুম্বই। কলকাতার মধ্যে এগিয়ে রয়েছে বালিগঞ্জ, নিউ আলিপুর, টালিগঞ্জ, পার্কস্ট্রিট। এখান থেকেই সবচেয়ে বেশি সার্চ হয়েছে। আর সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয়েছে লভ ইমোজি।

আরও পড়ুন
ব্যান করলেও কিছু আসে যায় না! আমেরিকা-কে TikTok বিক্রি করতে চায় না বেজিং

টিন্ডারে যাঁরা অ্যাকাউন্ট খুলেছেন তাঁদের মধ্যে আছেন, ফ্যাশন ডিজাইনার, আইনজীবী, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার এবং উদ্যোগপতিরা। মনোবিদ সোনালী গুপ্ত যেমন বলেছেন, আসলে মানুষ একটু খোলা মনে মিশতে চাইছেন। নিজের পেশায় প্রতিযোগিতা, চাপ সকলের রয়েছে। আর যেকারণে একই পেশার সঙ্গী বা বন্ধু এখন একটু কমই চাইছেন। আগে সকলে ভাবতেন বোধহয় একই পেশার দুজন মানুষ হলে সম্পর্ক ভালো হয়। কিন্তু এখন ব্যাপারটা উসটো। যে কারণে চিকিৎসকদের দিব্য বন্ধু হয়ে উঠছেন ফ্যাশন ডিজাইনাররা।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here