Latest: শান্তি এবং যুদ্ধ, যে কোনও রাস্তায় হাঁটতে রাজি চিন : সূত্র – Kolkata24x7

Latest: শান্তি এবং যুদ্ধ, যে কোনও রাস্তায় হাঁটতে রাজি চিন : সূত্র – Kolkata24x7

নয়াদিল্লি : প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ে কথায় খোঁচা খেয়ে এখন তর্জন গর্জন শুরু হয়েছে চিনের। লোকসভায় মঙ্গলবার রাজনাথ সিং বলেন ভারত যে কোনও পথে হাঁটতে তৈরি। সব ধরণের প্রস্তুতি সেরে ফেলেছে ভারতীয় সেনা। যে কোনও দখলদারি মনোভাবের প্রতিবেশীকে কড়া শাস্তি দেওয়ার ক্ষমতা ভারতের আছে।

এরপরেই বেজিংয়ের পক্ষ থেকে বলা হয় যুদ্ধ অথবা শান্তি, চিন দুই রাস্তাতেই হাঁটতে রাজি। চিনের জাতীয় সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমসের এক প্রতিবেদনকে উদ্ধৃত করে জানানো হয়েছে চিনা সেনার চাপেই নাকি ভারতীয় সেনা সীমান্তে শান্তির কথা বলছে। ভারত চিনের চাপেই শান্তির বার্তা দিচ্ছে।

গ্লোবাল টাইমসে প্রকাশিত এক প্রবন্ধে জানানো হয়েছে ভারত বুঝতে পারছে চিনের সঙ্গে সামরিক সংঘাতে যাওয়া হলে, তাদেরই ক্ষতি। তবে চিনের মনোভাব ও ভারতের অবস্থান সম্পর্কে স্পষ্ট তথ্য মঙ্গলবার লোকসভায় তুলে ধরেছেন রাজনাথ।

উল্লেখ্য, ভারতে নিযুক্ত চিনের রাষ্ট্রদূত সাং ওয়েইডং দিন কয়েক আগেই বলেন দুই দেশের মধ্যে যে জটিল পরিস্থিতি তৈরি হয়ে রয়েছে, তা কেটে যাবে খুব দ্রুত। সুস্পর্কের দিন ফের ফিরে আসবে। দুই দেশ আলোচনার মাধ্যমেই নিজেদের পথ খুঁজে নেবে।

নয়াদিল্লিতে এদিন ওয়েইডং বলেন তিনি বিশ্বাস রাখেন দুদেশের শান্তিকামী প্রকৃতি ও মনোভাবের ওপর। দুই দেশই বারবার আলোচনা চাইছে। বৈঠকের মধ্যে থেকেই শান্তি ও স্থিতাবস্থার সূত্র বেরিয়ে আসবে। সীমান্তে আর উত্তেজনা কাম্য নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সংঘাত নয়, দুই দেশই শান্তি চায় বলে জানান চিনা রাষ্ট্রদূত। একে অপরের বিশ্বাস জিততে কিছুটা পথ একসাথে হাঁটা দরকার। সেই পথেই হাঁটা শুরু করবে ভারত ও চিন বলে বিশ্বাস ওয়েইডংয়ের।

উল্লেখ্য, মুখে শান্তির কথা বললেও সীমান্তে খালি লোকবল ও অস্ত্রশস্ত্র বাড়াচ্ছে চিন। সামঞ্জস্য বজায় রাখার জন্য একই পথে যাচ্ছে ভারত। কিন্তু এর ফলে ক্রমশই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে সীমান্ত। প্যাংগংয়ের দক্ষিণ প্রান্তে অনেক গুরুত্বপূর্ণ চুড়োর দখলও এখন ভারতের হাতে। ফলে খেলা অনেকটাই ঘুরেছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here