Latest: Mamata Benerjee: বাংলা ধ্রুপদী ভাষা নয় কেন? অবাঙালি ভোটের লক্ষ্যে হিন্দি সেলও গড়ল তৃণমূল! – as per mamata banerjee’s direction tmc reconstruct their hindi cell for 2021 assembly election

Latest: Mamata Benerjee: বাংলা ধ্রুপদী ভাষা নয় কেন? অবাঙালি ভোটের লক্ষ্যে হিন্দি সেলও গড়ল তৃণমূল! – as per mamata banerjee’s direction tmc reconstruct their hindi cell for 2021 assembly election

হাইলাইটস

  • তৃণমূলের উপর বিরোধীদের লাগানো ‘তোষণ’ রাজনীতির জেরে যাতে ভোটের বাক্সে কোনও প্রভাব না পড়ে, সেই কারণে এবার অবাঙালি ভোটারদের দিকেও গুরুত্ব দিয়ে নজর দিতে চলেছে এ রাজ্যের শাসক দল।
  • নতুন করে গঠিত এই হিন্দি সেলের চেয়ারম্যান করে হয়েছে রাজ্যসভার সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীকে।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: বিধানসভা ভোটের আর এক বছরও বাকি নেই। সাংগঠনিক রদবদলে ব্যস্ত প্রত্যেক শিবির। কিন্তু তৃণমূলের উপর বিরোধীদের লাগানো ‘তোষণ’ রাজনীতির জেরে যাতে ভোটের বাক্সে কোনও প্রভাব না পড়ে, সেই কারণে এবার অবাঙালি ভোটারদের দিকেও গুরুত্ব দিয়ে নজর দিতে চলেছে এ রাজ্যের শাসক দল। সেই সূত্রেই এবার দলের হিন্দি সেল অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে গঠন করল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। গত বছরেই অবশ্য দলনেত্রী স্বয়ং হিন্দি সেল গঠনের নির্দেশ দিয়েছিলেন। আর সোমবার দলের সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, ‘প্রতিটি ভাষাকে তোড়ায় সাজিয়ে রাখা এক–একটি ফুল হিসেবে দেখেন আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সব ধরনের ভাষাভাষির লোকজনের জন্য পশ্চিমবঙ্গের দরজা খোলা রয়েছে।’ সেই সূত্রেই দলের হিন্দি সেলের ঘোষণা করেন তিনি।

নতুন করে গঠিত এই হিন্দি সেলের চেয়ারম্যান করে হয়েছে রাজ্যসভার সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীকে। আর সভাপতি করা হয়েছে সাংবাদিক তথা অপর সাংসদ বিবেক গুপ্ত। দলের তরফে জানানো হয়েছে, একেবারে জেলাস্তর থেকে কেন্দ্রীয় স্তর পর্যন্ত এই সেলের নেতৃত্বে কাজ চলবে বলে জানানো হয়েছে। এদিন দীনেশ ত্রিবেদী বলেন, ‘সকল হিন্দি ভাষীকে হিন্দি দিবসের শুভেচ্ছা। হিন্দি ভাষীদের সাংস্কৃতিক মাননোন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করবে আমাদের দলের এই সেল।’ পাশাপাশি বাংলা ভাষাকে ধ্রুপদী ভাষার মর্যাদা দেওয়ার দাবিও তোলেন দীনেশ। তাঁর কথায়, ‘অত্যন্ত দুঃখজনক বিষয় হল, বাংলা ভাষাকে ধ্রুপদী ভাষার মর্যাদা দেওয়া হয়নি। আশা করি, এর পরের বছর জয়েন্ট প্রবেশিকা পরীক্ষার প্রশ্নপত্র বাংলা ভাষাতেও দেওয়া হবে।’

রাজ্য জুড়ে ছড়িয়ে থাকা অবাঙালি বাসিন্দাদের উন্নয়নের স্বার্থে এবং বিজেপিকে আটকাতে বিস্তারকে আটকানোর চেষ্টায় ২০১৮ সালে নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে প্রথম আত্মপ্রকাশ করে তৃণমূল হিন্দি সেল। সেলের সভাপতি করা হয়েছিল অর্জুন সিংকে। কিন্তু ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের সময়ই দল ছেড় বিজেপিতে গিয়ে সাংসদ হন অর্জুন। তারপরই তৃণমূলের হিন্দি সেল নতুন করে গঠন করার নির্দেশ দেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শহর এবং শহরতলি ছাড়িয়ে গ্রামের আনাচে–কানাচে লাখো হিন্দিভাষী মানুষকে তৃণমূলের এক ছাতার তলায় নিয়ে আসার লক্ষ্যেই এই হিন্দি সেল গঠন করেন সুব্রত বক্সী। এবার দীনেশ ত্রিবেদী ও বিবেক গুপ্তার মতো শিক্ষিত মুখকে এই সেলের দায়িত্ব দিয়ে নতুন করে অবাঙালি ভোটবাক্সে নজর দিচ্ছে তৃণমূল।

এদিন হিন্দি দিবস উপলক্ষেও ট্যুইট বার্তায় হিন্দি ভাষাভাষী মানুষকে শুভেচ্ছা জানান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ট্যুইট বার্তায় মমতা লেখেন, ‘আমরা সকল ভাষাকেই সম্মান করি। বাংলায় সকলকে স্বাগত। হিন্দি শিক্ষার জন্যেও আমাদের সরকার সর্বোতভাবে কাজ করেছে। করে যাবে।’

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here