Latest: বিজেপি জেলা সভাপতি দীপঙ্কর জানার হাত ধরে তৃণমূল ছেড়ে কয়েকশো নেতাকর্মী যোগদান করলেন বিজেপিতে

Latest: বিজেপি জেলা সভাপতি দীপঙ্কর জানার হাত ধরে তৃণমূল ছেড়ে কয়েকশো নেতাকর্মী যোগদান করলেন বিজেপিতে

আজ বিজেপি মথুরাপুর সাংগঠনিক জেলার অন্তর্গত কাকদ্বীপ মন্ডল ৪ এর অন্তর্গত নারায়ণ পুর অঞ্চল বিজেপির উদ্যোগে বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মথুরাপুর জেলা বিজেপির জেলা সভাপতি দীপঙ্কর জানা। আজ এই অনুষ্ঠানে তৃণমূল- সিপিএম ছেড়ে শতাধিক নেতাকর্মী ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেন।

দীপঙ্কর জানা বলেন আজ ভারতীয় জনতা পার্টির বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে বিভিন্ন দল ছেড়ে কয়েকশ’ নেতাকর্মী নরেন্দ্র মোদীজির অনুপ্রেরণায় অনুপ্রাণিত হয়ে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেন। দীপঙ্কর জানা বলেন শাসকদল তৃণমূল এর অত্যাচারে অত্যাচারিত নিপীড়িত হয়ে মানুষ আজ অসহায়। কেন্দ্রে বিজেপি সরকার এবং আমাদের জাতীয় নেতা নরেন্দ্র মোদীজির চিন্তা ধারা বাংলার মানুষের মন জয় করে নিয়েছে। বুলবুল তথা আমফানের দুর্নীতিতে জর্জরিত এই তৃণমূল সরকার।

আরও পড়ুন : প্রাক্তন উপ-পুরপ্রধানের প্রয়াণ বার্ষিকীতে শ্রমজীবী ক্যান্টিনে স্মরণসভা

চিটফান্ড কেলেঙ্কারি থেকে শুরু করে মানুষের ত্রাণের টাকা পর্যন্ত লুট করে খাচ্ছে এই তৃণমূল সরকার। দিকে দিকে ভারতীয় জনতা পার্টি সৈনিক বাড়ছে। মমতা ব্যানার্জি বুঝতে পেরেছে রাজনৈতিক ময়দানে মমতা ব্যানার্জি হেরে গেছেন। তাই দিকে দিকে আমাদের ভারতীয় জনতা পার্টির সৈনিকদের নির্মমভাবে হত্যা করা হচ্ছে নতুবা মিথ্যে কেস দিয়েছে ভরা হচ্ছে। কিন্তু মমতা ব্যানার্জি আপনি শুনে রাখুন ২০২১ বিধানসভায় আপনাকে গঙ্গাসাগরে বিসর্জন দিয়ে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বাংলার দামাল ছেলে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গে ভারতীয় জনতা পার্টি সরকার গঠন করতে চলেছে।

শুধু আজ নয় প্রতিনিয়ত প্রতিদিন বিভিন্ন দল ছেড়ে ভারতীয় জনতা পার্টির ছত্রছায়ায় মানুষ এসে দাঁড়াচ্ছেন। আমরা তাদেরকে সাদরে স্বাগতম জানাই।

আরও পড়ুন : করোনায় আক্রান্ত কিশোর, বহুতল জীবাণুমুক্ত করল পুরসভা

প্রফুল্ল কুমার দাস বলেন আমি তৃণমূলের একজন সৈনিক ছিলাম, কিন্তু আজ একবিংশ শতাব্দীতে দাঁড়িয়ে যখন দেখি গণতন্ত্রের নামে রাজতন্ত্র, একনায়কতন্ত্র তৃণমূলের মিথ্যাচার লাঞ্ছনা-বঞ্চনার জর্জরিত মানুষ মানুষকে যথারীতি শোষণ করার একটা জাতাকল। সেই যাঁতাকলে আমি নিষ্পেষিত হয়ে আমার কিছু সমর্থক কে নিয়ে আমি আজকের ভারতীয় জনতা পার্টির পতাকা ধরে মথুরাপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি দীপঙ্কর জানা মহাশয় এর হাত ধরে যোগদান করলাম।

তিনি বলেন আমাদের লক্ষ্য আমি সারা জীবন ধরে শিক্ষকতা সাথে যুক্ত ছিলাম আজ আমি ৭২ বছর বয়সে একরকম শেষ জীবনের শেষ প্রান্তে এসে দাঁড়িয়েছি তাই এখানে আমার এখন অনেক ছাত্র-ছাত্রীরা উপস্থিত আছেন এবং শুধু তাই নয় তারা আপনাদের আওতায় আপনাদের দায়িত্বে আপনাদের মন্ডলে, তারা কিন্তু এখনো কাজকর্ম করে চলেছে । এবং আমারই ছাত্র কার্তিক মান্না মহাশয় তিনি অকপটে স্বীকার করলেন তার জন্য আমি অত্যন্ত আনন্দিত এবং আপ্লুত ও গর্বিত।

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here