Latest: দুপয়সার সাংবাদিক মন্তব্যের বিরুদ্ধে স্বপন দত্ত বাউলের প্রতিবাদ

Latest: দুপয়সার সাংবাদিক মন্তব্যের বিরুদ্ধে স্বপন দত্ত বাউলের প্রতিবাদ

নদিয়ার গয়েসপুরে এক জনসভা থেকে সাংসদ মহুয়া মৈত্র সাংবাদিক দের কুরুচিকর মন্তব্য করে বলেছেন দুপয়সার সাংবাদিক বলে ।সাংসদের এই নোকরা মন্তব্য নিয়ে সাংবাদিক মহলে বিশাল ঝড় উঠেছে।

এটা শুধু নদিয়ার সাংবাদিক দের উদ্দেশ্যে অপমান নয় সারা বিশ্বের সাংবাদিক দের অপমান তাই এরই মধ্যে জি ২৪ ঘন্টা ও সি এন টিভি সংবাদ মাধ্যম সাংসদ মহুয়া মৈত্রকে বয়কট করেছে।। সাংসদের এই দুপয়সার সাংবাদিক কুরুচিকর মন্তব্যর বিরুদ্ধে বাউলগানে প্রতিবাদে সরব হয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন এবং ভারতের প্রাপ্ততন রাষ্ট্রপতির আশীর্বাদ ধন্য শিল্পী স্বপন দত্ত বাউল। তিনি নিঃস্বার্থ বিনাপারিশ্রমিকে সবসময় পথে নামেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার জন্য এবং সমাজ সচেতন করার জন্য।

খাজা আনোয়ার বেড় পূর্ব বর্ধমানের বাউল স্বপন দত্ত নিজে গান লিখে সুর করে সাংবাদিক দের অপমানের বিরুদ্ধে পথে নামলেন রাষ্ট্রপতির কাছে উপহার পাওয়া কোল ডুগি একতারা হাতে নিয়ে বাজিয়ে বাউলগানে। এর আগে বহুবার সাংবাদিক নিগ্রহ , অত্যাচার ও সাংবাদিক দের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা নিয়ে সারা রাজ্যের জেলায় জেলায় ঘুড়ে ঘুড়ে এমনকি কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে প্রতিবাদে সরব হয়েছিলেন। এছাড়া সাংবাদিক দের জন্য সুরক্ষার দাবি তুলে সাংবাদিক দের সুরক্ষা বিল আনতে স্বপন দত্ত বাউলের ভূমিকা সবার আগে। ঠিক তেমনি সাংসদ মহুয়া মৈত্রর সকল সাংবাদিক দের উদ্দেশ্যে দুপয়সার সাংবাদিক বলে অপমান করাকে তিনি কুরুচিকর মন্তব্য বলেছেন এবং তার মূল্যবান বক্তব্যে বলেছেন একজন সাংসদ কোন অধিকারে গণমাধ্যমকে এমন অপমান করে সাংবাদিক দের কেউ কারো কেনা গোলাম ভাববেন না। তিনি প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েনিন।

আরও পড়ুন : ৭৫ লক্ষ বেকারকে চাকরির প্রতিশ্রুতি, বিজেপির

গানে গানে বলেন
1 ) সাংবাদিক দের অপমান করেছে সাংসদ মহুয়া মৈত্র , হায়রে ! দুপয়সার সাংবাদিক বলে । আয় আয় আয় কুরুচিকর মন্তব্যের বিরুদ্ধে , সাংসদ মহুয়া মৈত্র কে বয়কট করি সকলে।। তবে স্বপন বাউল তার মূল্যবান বক্তব্যে বার বার বলেছেন যে কোনো কাজই ছোটো নয় এটা কি সাংসদ জানেন না।

সাংবাদিকরা কত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সংবাদ সংগ্রহ করে দেশের নেতা মন্ত্রী সরকার সাধারণ মানুষ সকলেরই প্রচার দেয় । ও সমাজের সকল ঘটনা তুলে ধরে তারা সমাজ কর্মী, সমাজ সচেতনের কাজ করে। একজন শিক্ষিত সাংসদ হয়ে এমন অশিক্ষিতের মত মন্তব্য করলেন কি করে। প্রকাশ্য জনসভায় সাংবাদিক দের দুপয়সার সাংবাদিক বলে, উনি অন্যায় করেছেন মানুষকে ও মানুষের কাজকে ছোটো করে , সারা বিশ্বের গণমাধ্যম কে অপমান করেছেন । এই সাংবাদিকরাই তাকেও প্রচার দিয়েছে তবে কেনো সাংবাদিক দের বিরুদ্ধে তার নোংরা মন্তব্য ?

আরও পড়ুন : টাকা তছরূপে ধৃত কলেজের প্রাক্তন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষা

সারা বিশ্বের সাংবাদিক দের অপমান এটাকি আসল শিক্ষিত মানুষের পরিচয়? রাজ্যের একজন সাংসদের কাছে আমরা কি শিক্ষা পাচ্ছি যে মানুষের কাজ কে ছোটো করে দেখো মানুষকে ছোটো করে অপমান করো ,এই শিক্ষা যদি প্রকাশ্যে জনসভায় একজন শিক্ষিত সাংসদ মানুষকে দেয় সেই সাংসদ জনকল্যাণ এর কাজ করবে কি করে।

যে জনগণ তাকে সাংসদ তৈরি করলো । সাংসদের এই অন্যায় আচরণের বিরুদ্ধে সংবাদ মাধ্যম, বুদ্ধিজীবী মানুষ সকলেই গর্জে উঠেছে তাই অনেক মহলেই মনে করছেন নিজের সম্মান রক্ষা করার জন্য প্রকাশ্যে সাংসদ মহুয়া মৈত্রীর ক্ষমা চেয়ে নিয়ে নিজের সম্মান রক্ষা করা বুদ্ধিমানের কাজ হবে । কারণ অহঙ্কার পতনের মূল সেটা সাংসদই হোন আর যেই হোন ভুলে গেলে চলবে না।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here