Latest: ‘বেশি ওস্তাদি করার দরকার নেই’: ফিরহাদ

Latest: ‘বেশি ওস্তাদি করার দরকার নেই’: ফিরহাদ

দলের সম্পর্কে ‘বেসুরো’ মন্ত্রী সাধন পাণ্ডেকে এবার সতর্কবার্তা দিল তৃণমূল। দলের তরফে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, ”ওঁর যদি কোনও বক্তব্য থাকে, তা হলে সেটা দলের অন্দরে জানান।

বাইরে বলে ওস্তাদ হওয়ার কোনও দরকার নেই! সংবাদমাধ্যমে অভিযোগ আকারে বলে দলকে ছোট না করাই যে কোনও শৃঙ্খলাপরায়ণ কর্মীর দায়িত্ব ও কর্তব্য।”

তৃণমূল কংগ্রেসের ২৩ তম প্রতিষ্ঠা দিবসে শুক্রবার নিজের বিধানসভা কেন্দ্রে এক কর্মসূচিতে ক্রেতাসুরক্ষা মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে ক্ষোভপ্রকাশ করে বলেন, ”দলের নানা পদে ও দায়িত্বে অনেক খারাপ লোক বসে আছে।

তৃণমূলের ভালর জন্যই যারা খারাপ, তাদের দল থেকে এক্ষুনি বাদ দেওয়া উচিত।” স্বভাবতই তা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে গুঞ্জন ছড়ায়। কিন্তু শুভেন্দু অধ্যায়ের পর তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব যে শৃঙ্খলার ক্ষেত্রে অত্যন্ত কড়া তা বুঝিয়ে দিয়ে বেসুরো মন্ত্রী-বিধায়কদের উদ্দেশ্য এদিন ফিরহাদ বলেছেন, ‘শুধু মাত্র সাধনদা নন।

আরও পড়ুন:  তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হবেন মমতা, কালীঘাটে পুজো সুজাতার

এমন যাঁরাই আছেন, তাঁদের উচিত যা বলার, দলের ভিতরে বলা। বাইরে বলে ওস্তাদ হওয়ার কোনও দরকার নেই! এতে দলের ভাবমূর্তি ছোট হয়। ওই নেতার নাম বা ছবি হয়তো একদিন সংবাদমাধ্যমে বড় করে দেখায়, কিন্তু আদতে তৃণমূলের ক্ষতি হয়। এটা দলীয় নেতৃত্ব অনুমোদন করে না।’

সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি-তে যোগদানের তালিকায় যে সমস্ত বিধায়ক বা মন্ত্রীর নাম নিয়ে জল্পনা হচ্ছে, তাঁদের মধ্যে সাধন পাণ্ডের নামও শোনা যাচ্ছে। ওই প্রসঙ্গে সাধনের বিষয়ে কিছু না বললেও বিজেপি-র ‘দল ভাঙানো’র প্রচেষ্টা নিয়ে ফিরহাদ বলেছেন, ”বিজেপি তিন রকম ভাবে দল ভাঙানোর চেষ্টা করছে।

প্রথমত, ইডি-সিবিআই দিয়ে ভয় দেখানো। দুই, বিভিন্ন পদের প্রলোভন দেখানো এবং তিন, রাজনৈতিক চাপ সৃষ্টি করা। কিন্তু আমরা ওসবে ভয় পাই না।”

এদিন কাঁথি পুরসভার প্রশাসক তথা শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌমেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়েও কটাক্ষ করেন ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, ‘কুর্সি চলে যেতেই নীতি বিসর্জন দিয়েছে, ওঁদের সম্পর্কে কিছু বলে নিজেকে ছোট করব না।’

 

 

সুত্র: কলকাতা ২৪*৭

Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here