Latest: মিডিয়া সামলাবেন বিজেপির জেলা মুখপাত্র

Latest: মিডিয়া সামলাবেন বিজেপির জেলা মুখপাত্র

ঝাড়গ্রাম: বিজেপির ঝাড়গ্রাম জেলার দলীয় মুখপাত্রের দায়িত্ব পেয়েছেন মৃণালকান্তি ভুঁইয়া। গেরুয়া শিবির সূত্রের খবর, বছর পঁয়তাল্লিশের পেশায় প্রাথমিকশিক্ষক মৃণালকান্তি বিজেপির দীর্ঘদিনের কর্মী। তিনি বিভিন্ন ভাষায় পারদর্শী। দলের ইতিহাস ও কর্মপদ্ধতি সম্পর্কে তিনি যথেষ্ট ওয়াকিবহাল। তাঁর রাজনৈতিক জ্ঞানও দলে প্রশংসিত।

বিজেপি সূত্রের খবর, জেলার চারটি বিধানসভা আসনকে পাখির চোখ করে দলের ঝাড়গ্রাম জেলা সভাপতি সুখময় শতপথীর নেতৃত্বে মাঠে নেমে পড়েছেন দলের নেতা-কর্মীরা। তত্ত্বাবধানে রয়েছেন ওড়িশা থেকে আসা দলের পাঁচ কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি। দলীয় বৈঠক কিংবা কর্মসূচিতে সুখময় ব্যস্ত থাকায় তাঁর ফোন অনেক সময়ে ‘সুইচ অফ’ থাকছে। অনেকক্ষেত্রে মণ্ডল ও শক্তিকেন্দ্রের কর্মসূচিগুলি প্রত্যন্ত গ্রামে হওয়ায় মাঝে মধ্যে ‘স্যাডো জ়োন’ থাকায় সুখময়ের ফোন ‘নট রিচেবল’ হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে মিডিয়া সামলানোর দায়িত্ব বর্তেছে মৃণালকান্তির উপরে।

আরও পড়ুন : কয়েক লক্ষ টাকার কোকেন-সহ পুলিশের জালে বিজেপি যুব নেত্রী পামেলা গোস্বামী

সপ্তাহখানেক আগে লালগড়ে জেলার পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করেছিলেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎপ্রকাশ নড্ডা। কিন্তু নড্ডার জনসভায় উল্লেখযোগ্য জমায়েত হয়নি বলে কটাক্ষ করেছিল তৃণমূল। সেই প্রসঙ্গে মুখপাত্র বলছেন, ‘‘বিজেপির জনসমর্থনে কোথাও ভাটা পড়েনি। জেলা জুড়ে দীর্ঘ পরিক্রমার যাত্রা পথে বহু মানুষ ছিলেন।’’

কয়েকদিন আগে বিনপুরের এড়গোদা অঞ্চলে জেলা সভাপতি সুখময় ও রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে খুনের হুমকি দিয়ে মাওবাদীদের নামে দেওয়াল লিখন হয়েছিল। সেই প্রসঙ্গে মুখপাত্রের দাবি, ‘‘মানুষ বিজেপিকে সমর্থন করছেন, তাই আমাদের নেতৃত্বকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তৃণমূল জঙ্গলমহলে জনসমর্থন হারিয়েছে। তৃণমূল নেত্রী ভোটের দোরগোড়ায় জঙ্গলমহল পুনরুদ্ধারের জন্য ‘সন্ত্রাসবাদী’ এক নেতাকে দলে মুখ করেছেন।” মৃণালকান্তি জানালেন, জেলা সভাপতি তাঁকে মুখপাত্রের দায়িত্ব দিয়েছে। এজন্য জেলা সভাপতির কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। যথাযথ দায়িত্ব পালন করে জঙ্গলমহলে দলের শ্রীবৃদ্ধি ঘটানোই তাঁর উদ্দেশ্য বলে জানিয়েছেন বিজেপির নয়া মুখপাত্র।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here