Latest: ৩৫৫ বুথের আসনে ২২ কোম্পানি বাহিনী, নন্দীগ্রামে জারি হল ১৪৪ ধারা

Latest: ৩৫৫ বুথের আসনে ২২ কোম্পানি বাহিনী, নন্দীগ্রামে জারি হল ১৪৪ ধারা

রাত পোহালেই নির্বাচন নন্দীগ্রামে (Nandigram)। একুশের নির্বাচনের (West Bengal Assembly Election 2021) ‘এপিসেন্টার’ সেই নন্দীগ্রামেই বাড়তি সতর্কতা নির্বাচন কমিশনের (Election Commission)। নন্দীগ্রামে জারি হল ১৪৪ ধারা।

কমিশন বলছেন, নন্দীগ্রামের ৩৫৫টি বুথই স্পর্শকাতর। আর তার জেরেই ১৪৪ ধারা জারি করল কমিশন। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ছটার পর থেকেই এই নির্দেশ কার্যকর করা হবে। এক সঙ্গে পাঁচ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না। নন্দীগ্রামে মোতায়েন করা হয়েছে ২২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী।

ইতিমধ্যেই প্রার্থী সংযুক্ত মোর্চার সিপিআইএম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায় ভোট লুঠ হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। মঙ্গলবারই নন্দীগ্রামে প্রচার চালানোর সময়ে আক্রান্ত হন মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। নন্দীগ্রামের ভূতনি মোড়ে ঘটনাটি ঘটে। আবার ময়নায় বিজেপি প্রার্থী অশোক দিন্দার ওপর আক্রমণ হয়। এরপর বাড়ানো হয় অশোক দিন্দার নিরাপত্তাও।

আরও পড়ুন: বিজেপির ভোট বেড়েছে ৭ গুণ, শেষরক্ষা হবে কি তৃণমূলের?

কেন বারবার নন্দীগ্রামে হামলা, অশান্তির অভিযোগ উঠছে. তাতে বিরক্ত হয় কমিশন। দফায় দফায় বৈঠকে বসেন কমিশনের কর্তারা। নন্দীগ্রামের সব বুথই স্পর্শকাতর হিসাবে ঘোষণা করা হয়। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় নন্দীগ্রামের প্রতিটি বুথেই ৮ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন থাকবেন। ভোটের ঠিক ৪৮ ঘণ্টা আগে হলদিয়ার এসডিপিওকে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়।

এই কেন্দ্রের উপর বাড়তি নজর রাখতে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দফতরে বিশেষ সেল তৈরি করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার ভোটের দিন সকাল থেকেই এই সেলের অফিসারেরা পরিস্থিতির উপর নজর রাখবেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানাচ্ছে, নন্দীগ্রামের ৭৫% বুথকে ওয়েবকাস্টিংয়ের আওতায় রাখা হবে। অর্থাৎ প্রায় ২৬৭টি বুথে ক্যামেরা থাকবে। বিভিন্ন দিক থেকে ভিডিয়ো ফুটেজ কমিশনের কন্ট্রোল রুমে সম্প্রচারিত হবে।

কমিশনের এক কর্তা জানান, কোন বুথ কতটা সংবেদনশীল, তার উপরেই এই পদ্ধতি নির্ভর করে। সেই ওয়েবকাস্টিং দেখতে পারবেন সেক্টর, জেলা নির্বাচনী আধিকারিক এবং সিইও দফতরের অফিসারেরা। কর্তাদের একাংশ জানাচ্ছেন, এই ওয়েবকাস্টিংয়ের ছবি রেকর্ড করে রাখা যাবে। এ ছাড়াও থাকবে সাধারণ ভিডিয়োগ্রাফির ব্যবস্থা। বুধবার সকাল ছ’টা থেকে ২ এপ্রিল সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত নেটওয়ার্ক ঠিক রাখতে বলা হয়েছে টেলিফোন সংস্থাগুলিকেও।

সিইও দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, এই কেন্দ্রের প্রতিটি বুথে একজন করে মাইক্রো-অবজ়ারভার রাখা হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি মোকাবিলায় পর্যাপ্ত সংখ্যায় থাকবে ফ্লাইং স্কোয়াডও। ভোটের সময় আচমকা গোলমাল রুখতে ২২টি কুইক রেসপন্স টিমও প্রস্তুত থাকবে।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here