Latest: West Bengal Assembly Election 2021 : একজনকে মারলে চারজনকে মারা হবে: Sayantan Basu

Latest: West Bengal Assembly Election 2021 : একজনকে মারলে চারজনকে মারা হবে: Sayantan Basu

শীতলকুচিতে নির্বাচনী সহিংসতায় ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা ও রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসু। তিনি বলেছেন, একজনকে মারলে শীতলকুচির মতো আরও চারজনকে মারা হবে।

সোমবার (১২ এপ্রিল) পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলায় এক পথসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। তার এমন মন্তব্যর পর তর্ক-বিতর্ক হতে বেশি সময় লাগেনি বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার।

সায়ন্তন বসু দাবি করেন, বিজেপি-র নির্দেশেই শীতলকুচিতে গুলি চালানো হয়েছে। অন্যদিকে তৃণমূল পাল্টা দাবি করে বলেছেন, শীতলকুচি নিয়ে তাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথাই স্বীকার করে নিয়েছেন সায়ন্তন বসু।

আরও পড়ুন : গোর্খারা নিশ্চিত থাকুন, পশ্চিমবঙ্গে NRC হচ্ছে না, দার্জিলিংয়ে বললেন অমিত শাহ

পথসভায় সায়ন্তন বসু বলেন, ‘পরিষ্কার ভাষায় আমি সায়ন্তন বসু বলছি, খেলা যদি খেলতে চাও, তবে শীতলকুচির খেলাই খেলব। সকালে ১৮ বছর বয়সী আনন্দ বর্মণকে হত্যা করেছিলে। বেশিক্ষণ সময় লাগেনি। ৬ ঘণ্টার মধ্যেই ৪ জনকে বেহস্তের রাস্তা দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

সেসময় তিনি আরও বলেন, শোলে সিনেমার একটা ডায়লগ ছিল জানেন তো, ‘১ মারোগে তো ৪ মারেঙ্গে’। শীতলকুচিতে তা-ই হয়েছে।

সায়ন্তনের এই মন্তব্য নিয়ে সেখানকার রাজনৈতিক মহলে বেশ শোরগোল শুরু হয়েছে।

তৃণমূলের জলপাইগুড়ি জেলা সম্পাদক রাজেশ কুমার সিংহ বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে দাবি করেছিলেন, আসলে তা যে সত্যি, নিজের মুখে তা স্বীকার করে নিলেন সায়ন্তন বসু। আমাদের দাবিকেই স্বীকৃতি দিয়েছেন তিনি। এর থেকে পরিষ্কার যে, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করছে বিজেপি।’

গতকাল শনিবার (১২ এপ্রিল) চতুর্থ দফায় শীতলকুচিতে ভোটগ্রহণের সময় ২টি আলাদা ভোটকেন্দ্রে মোট পাঁচজন নিহত হন। আনন্দ ছাড়াও কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে নিহত হন একসঙ্গে চারজন।



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here