Latest: obama describes rahul gandhi: স্মৃতিকথায় যে ভাবে রাহুল গান্ধীকে মনে করেছেন বারাক ওবামা… – like a student eager to impress the teacher: obama describes rahul gandhi in his memoir

Latest: obama describes rahul gandhi: স্মৃতিকথায় যে ভাবে রাহুল গান্ধীকে মনে করেছেন বারাক ওবামা… – like a student eager to impress the teacher: obama describes rahul gandhi in his memoir

হাইলাইটস

  • বারাক ওবামার স্মৃতিকথা A Promised Land
  • একাধিক বিষয়ের পাশাপাশি বিশ্বনেতাদের সম্পর্কে নিজের পর্যবেক্ষণ জানিয়েছেন ওবামা
  • ভ্লাদিমির পুতিন, মনমোহন সিং, রাহুল গান্ধী, সোনিয়া গান্ধীকে অনেককেই স্মরণ করেছেন
  • ৭৬৮ পাতার এই স্মৃতিকথাটি দু-মলাটে প্রকাশিত হতে পারে ১৭ নভেম্বর

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার চোখে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী একজন ‘নাভার্স’, ‘অগোছালো’ প্রকৃতির। কয়েক বছর আগে রাহুলের সঙ্গে সাক্ষাতে ওবামার মনে হয়েছিল, শিক্ষককে মুগ্ধ করতে উদগ্রীব একজন পড়ুয়ার মতো রাহুল। কিন্তু, নির্দিষ্ট বিষয়টিতে ‘দক্ষতা অর্জন’-এ যে তত্‍‌পরতা বা প্যাশন থাকা উচিত, তার খামতি রয়েছে।

ওবামার স্মৃতিকথা ‘A Promised Land‘-এর পর্যালোচনা বেরোয় দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসে। স্মৃতিচারণে আর অনেক বিষয়ের সঙ্গে আমেরিকার প্রথম কৃষাঙ্গ প্রেসিডেন্ট বিশ্বের রাজনৈতিক নেতাদের সম্পর্কে নিজের পর্যবেক্ষণ জানিয়েছেন। রাহুল গান্ধীর পাশাপাসি সোনিয়া গান্ধী ও মনমোহন সিং সম্পর্কেও নিজস্ব মতামত ব্যক্ত করেছেন বারাক ওবামা।

নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত পর্যালোচনা অনুযায়ী রাহুল গান্ধী সম্পর্কে ওবামা লেখেন, ‘একজন নার্ভাস, অগোছালো ব্যক্তিত্ব রাহুল গান্ধী। তিনি যেন একজন ছাত্র যে অনেক পড়াশোনা করে শিক্ষকের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ব্যগ্র। কিন্তু, হয় তাঁর মধ্যে তত্‍পরতার অভাব থেকে গিয়েছে নতুবা বিষয়টা বোঝানোর মতো দক্ষতা তাঁর কম।’

রাহুল গান্ধীর মা সোনিয়া গান্ধী সম্পর্কে সুন্দর ব্যাখ্যা রয়েছে বারাক ওবামার। আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের কথায়, ‘আমরা শুধুই চার্লি ক্রিস্ট বা রাহম এমানুয়েলের মতো সুদর্শন পুরুষদের কথা বলি। কিন্তু, একটা বা দুটো দৃষ্টান্ত ব্যতিত রাজনীতিতে মহিলাদের সৌন্দর্য নিয়ে বিশেষ কিছু একটা বলি না।’ মহিলা রাজনীতিক হিসেবে সোনিয়া গান্ধীকে সেই ব্যতিক্রম হিসেবে উল্লেখ করেন ওবামা।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রতিরক্ষা সচিব বব গেটস এবং ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের মধ্যে তিনি মিল খুঁজে পেয়েছেন। দু’জনের ক্ষেত্রেই মনে হয়েছে ব্যক্তি হিসেবে এঁরা ‘অবিচল’।

তাঁর লেখায় রয়েছে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রসঙ্গও। তাঁকে ‘স্ট্রিট স্মার্ট বস’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন ওবামা। পুতিনের শারীরিক গঠনের প্রশংসাও তিনি করেছেন।

সম্প্রতি বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০০ জন ব্যক্তিত্বের তালিকায় স্থান পেয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। তাঁকে ভারতের রিফর্মার-ইন-চিফ বলেও সম্বোধন করেছিলেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। টাইম ম্যাগাজিনে ‘দারিদ্র থেকে প্রধানমন্ত্রিত্বে’ শীর্ষক একটি প্রোফাইল লিখেছিলেন মোদীকে নিয়ে। ওবামার মতে, মোদীর এই জীবন কাহিনিতেই প্রতিফলিত হয়েছে ভারতের উত্থানের গতি ও সম্ভাবনা।

ওবামা লেখেন, ‘ছোটবেলায় বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করে পরিবারকে সাহায্য করেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। আর আজ তিনি পৃথিবীর বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশের মাথা। দারিদ্র থেকে প্রধানমন্ত্রিত্ব, মোদীর জীবন থেকেই ভারতের অগ্রগতি ও সক্রিয়তার সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়েছে।’ ভারতের ভয়াবহ দারিদ্র্য দূরীকরণ, শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়ন, মহিলাদের সামগ্রিক কল্যাণ সাধনে মোদীর উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসাও শোনা গিয়েছিল ওবামার কলমে।

৭৬৮ পাতার এই স্মৃতিকথাটি ১৭ নভেম্বর আনুষ্ঠানিক ভাবে বাজারে আসতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আমেরিকার প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দু-বার (২০১০ ও ২০১৫) ভারতে এসেছিলেন ওবামা।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন

Source link

Follow and like us:
0
20

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here